Shoaib Akhtar : হঠাৎ নিজের বায়োপিক থেকেই সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিলেন শোয়েব আখতার !

0
10
Shoaib Akhtar : Shoaib Akhtar disassociates himself from his biopic ‘Rawalpindi Express’, threatens 'severe legal action' against makers
Shoaib Akhtar : Shoaib Akhtar disassociates himself from his biopic ‘Rawalpindi Express’, threatens 'severe legal action' against makers

পাকিস্তানের প্রাক্তন স্পিডস্টার শোয়েব আখতার (Shoaib Akhtar) গত শনিবার আকস্মিক একটি ট্যুইটের মাধ্যমে ঘোষণা করেছিলেন যে, তিনি তার আসন্ন বায়োপিক ‘দ্য রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস’ থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন। তার কারন হিসেবে তিনি লিখেছিলেন যে, ‘অভিমতের সঙ্গে মতবিরোধ সমাধানে ব্যর্থতা এবং ক্রমাগত চুক্তি লঙ্ঘন’ তাকে এই সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য করেছে।

পাকিস্তানের কিংবদন্তি পেসার শোয়েব আখতারকে (Shoaib Akhtar) নিয়েই বায়োপিক। অথচ তিনি আর এর সঙ্গে যুক্ত থাকতে রাজি নন। তিনিই কেনো হঠাৎ এ ভাবে পিছু হঠলেন ? অথচ অনেক ঘটা করেই শুরু হয়েছিল শোয়েব আখতারের বায়োপিকের কাজ। জোর কদমে চলছিল শুটিং। তাহলে হঠাৎ কেনো এমন পরিস্থিতি তৈরি হল !

শোয়েব আখতার (Shoaib Akhtar) সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়েছেন যে, তার বায়োপিক রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেসের সঙ্গে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করছেন তিনি। তিনি ট্যুইটে লিখেছেন,

“বেশ কিছু বিষয়ে মতবিরোধ চলছিল। অনেক চেষ্টা করেও তার সমাধান হয়নি। বারবার চুক্তিভঙ্গ করা হয়েছে। সে কারণেই আমি এই প্রোজেক্ট থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি।“

এখানেই থেমে থাকেননি শোয়েব আখতার। হুঁশিয়ারি দিয়ে শোয়েব আরও (Shoaib Akhtar)  লিখেছেন,

“গত কয়েক মাস ধরে ভাবনা চিন্তার পরই এমন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হলাম। যারা এই বায়োপিক তৈরির দায়িত্বে রয়েছেন, তাদের সঙ্গে চুক্তি বিচ্ছিন্ন করেছে আমার ম্যানেজমেন্ট এবং লিগ্যাল টিম। আমার কাছে এটি স্বপ্নের প্রোজেক্ট ছিল।

অনেক কিছুই আটকানোর চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু দুর্ভাগ্য়বশত, আমার মতামত গ্রাহ্যই করা হয়নি। বাধ্য হয়েই চুক্তি বিচ্ছিন্ন করছি। ওদের সঙ্গে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন হয়েছে আমার। এরপরও যদি আমার বায়োপিক তৈরি করা হয় এবং কোনও ভাবে আমার নাম কিংবা ঘটনা ব্যবহার করা হয়, তাহলে আমি আইনি ব্য়বস্থা নিতে বাধ্য হবো।“

আরও পড়ুনঃ Indian Cricket : ভারতীয় দলে এতো চোট-আঘাত সমস্যার মূল কারন ব্যাখ্যা করলেন ৮৩’র বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক কপিল দেব

অথচ এই বায়োপিক তৈরির শুরুতে এটা নিয়ে খুবই উৎসাহিত ছিলেন শোয়েব আখতারও। তবে তিনি যে এখন রীতিমতো বিরক্ত, সেটা স্পষ্ট ভাবে বলে দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, দেশের হয়ে ৪৬ টি টেস্ট, ১৬৩ টি ওয়ানডে এবং ১৫ টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন শোয়েব আখতার (Shoaib Akhtar)। বিশ্ব ক্রিকেটে দ্রুততম ডেলিভারির রেকর্ড আছে তার দখলে। ১৬১ কিমি/ঘণ্টায় বোলিং করে সেই নজির গড়েছিলেন শোয়েব, যা এখনও অক্ষত।

ক্রিকেট কেরিয়ারে অনেক বড় বড় ব্য়াটসম্য়ানদের সামলেছেন শোয়েব। তার আগুনে বোলিংয়ের গুড়িয়ে যেতো তাবড় তাবড় শক্তিশালী ব্যাটিং লাইন-আপ। তার এক্সপ্রেস গতিতে ধেয়ে আসা ডেলিভারিতে আঁতকে উঠতেন অনেক বড় মাপের ব্য়াটসম্যানই। পাকিস্তানের সেই তারকা পেসারকে নিয়ে তৈরি হচ্ছিল বায়োপিক। যা মাঝপথেই মুখ থুবড়ে পড়লো। (Shoaib Akhtar)

আরও পড়ুনঃ IND vs PAK : আমেরিকায় টি টোয়েন্টি ম‍্যাচে মুখোমুখি হতে চলেছে ভারত – পাকিস্তান, জানুন বিস্তারিত