Hardik Pandya : হার্দিক’কে নিয়ে নির্বাচক’দের সতর্ক করলেন কপিল দেব

0
12
Hardik Pandya : 'They should not tell Hardik Pandya that if you lose one series...': Kapil Dev's stern warning to BCCI selectors
Hardik Pandya : 'They should not tell Hardik Pandya that if you lose one series...': Kapil Dev's stern warning to BCCI selectors

অধিনায়কত্ব এই মুহূর্তে ভারতীয় ক্রিকেট মহলের অন্যতম আলোচিত বিষয়। (Hardik Pandya) বর্তমানে রোহিত শর্মা এখন শুধুমাত্র ওয়ানডে এবং টেস্টেই ভারতকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। আর টি-টোয়েন্টি ফর্ম্যাটে রোহিতকে বিশ্রাম দেওয়ার কারণে, তার অনুপস্থিতিতে হার্দিক পাণ্ডিয়া টি-টোয়েন্টি টিমকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। যদিও সরকারি ভাবে হার্দিককে টি-টোয়েন্টির অধিনায়ক এখনও ঘোষণা করা হয়নি, তবে আপাতত প্রথম বারের মতো, দুটি ভারতীয় দল দুটি ভিন্ন খেলোয়াড়ের নেতৃত্বে রয়েছে।

তবে হার্দিককে যে পূর্ণ টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক হিসেবে ঘোষণা করা হবে, তা নিয়ে বিসিসিআই-এর যাবতীয় পরিকল্পনা তৈরি। ২০২৪’এর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপকে মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।  তবে বিসিসিআই-এর কাছে একমাত্র উদ্বেগের বিষয় হল, হার্দিকের ফিটনেস। হার্দিকের (Hardik Pandya) শারীরিক পরিস্থিতি কি তাকে সীমিত ওভারের সব ম্যাচ খেলতে দেবে ? বিশেষ করে এখন যখন তিনি বোলিং করছেন !

কার্যত, হার্দিক (Hardik Pandya) এখনও পর্যন্ত ভারতের অধিনায়ক হিসেবে তার মেয়াদে বেশ ভালো পারফর্ম করেছেন।  তিনি আয়ারল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড এবং অতি সম্প্রতি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে জিতিয়েছেন।

এই মুহূর্তে রোহিত এবং বিরাট কোহলি ভারতের টি-টোয়েন্টি পরিকল্পনা থেকে অনেকটা দূরে সরে যাওয়ায়, হার্দিক ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ২০২৪ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলার সময়ে ভারতীয় দলকে নেতৃত্ব দেবেন, এমনটাই আশা করা হচ্ছে।

ভারতের সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ অধিনায়কদের একজন, কপিল দেব মনে করেন যে, হার্দিক (Hardik Pandya) কিছু ভুল-ত্রুটি করলেও, তারকা অলরাউন্ডারকেই বিসিসিআই-এর দীর্ঘমেয়াদী বিকল্প হিসেবে ভাবা উচিত, তাকেই সমর্থন করা দরকার।

আরও পড়ুনঃ MS Dhoni : এবার কি সাউথ আফ্রিকার টি ২০ লিগে খেলতে চলেছেন ধোনি ? জানুন বিস্তারিত 

কপিল গালফ নিউজকে সম্প্রতি এই প্রসঙ্গে বলেছেন,

“আমার মনে হয় না, এই মুহূর্তে বিশ্বের বাকি দেশগুলো কি করছে সেই দিকে নজর দেওয়া উচিত। বরং   নিজেদের দল নিয়েই এখন চিন্তাভাবনা করা উচিত। হার্দিক পাণ্ডিয়া যদি অধিনায়ক হন, তা হলে এমনটা বলা উচিত নয় যে, একটি সিরিজ হারলেই ওকে সরিয়ে দেওয়া হবে।

যদি কাউকে অধিনায়ক করা হয়, তাহলে ভালো ফল পেতে হলে, তাকে একটু দীর্ঘ মেয়াদী সময় দিতে হবে। ও ভুল করবে। কিন্তু মূল বিষয় হল, ভুল-ত্রুটি নিয়ে পড়ে না থেকে, দেখতে হবে ও দলের দায়িত্ব নেওয়ার জন্য প্রস্তুত কিনা, এবং ভবিষ্যতের দিকে তাকাতে হবে। এই মুহূর্তে ওর উপর ফোকাস করা উচিত। সিরিজ বাই সিরিজে যাওয়া ঠিক নয়।”

প্রসঙ্গত, হার্দিক (Hardik Pandya) এখন রোহিতের স্থলাভিষিক্ত হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে আছেন। গত বছর ভারতীয় ক্রিকেটে অধিনায়কত্ব নিয়ে রীতিমতো মিউজিক্যাল চেয়ার খেলা হয়েছে। ঋষভ পন্ত, শিখর ধাওয়ান এবং কেএল রাহুল সহ প্রায় সাত জন ক্রিকেটারকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল দলের। রাহুলকে দীর্ঘতম সময়ের জন্য রোহিতের কাছ থেকে দায়িত্ব নিতে দেখা গিয়েছে, কিন্তু তার খারাপ ফর্মই হার্দিককে সুবিধে করে দিয়েছে।

আরও পড়ুনঃ Jasprit Bumrah : বুমরাহ’র মানের বোলার পাওয়া খুব কঠিন, এমনটাই বললেন ভারতের বোলিং কোচ