East Bengal : কথা কাটাকাটি শুরু ইস্টবেঙ্গল এবং ইমামির

0
19
East Bengal investor Emami complained that the club has not yet fixed a meeting date.
East Bengal investor Emami complained that the club has not yet fixed a meeting date.

East Bengal – ক্লাবের তরফেই কোনও বৈঠকের দিন এখনও ঠিক করে না ওঠার অভিযোগ তুলেছিলো ইস্টবেঙ্গলের ইনভেস্টর ইমামি। এরপর চুপ থাকেনি ইস্টবেঙ্গলের কর্মকর্তা দেবব্রত সরকার।‌ এই মুহূর্তে চিঠি এবং পাল্টা চিঠি দেওয়ার লড়াই জারি দুই পক্ষের মধ্যে।

ইতিমধ্যে ইস্টবেঙ্গলের (East Bengal) তরফে জানানো হয়েছিল তাদের তরফে ইনভেস্টরের কাছে আগামী মরশুমের জন্যে সম্ভাব্য ক্রিকেটারদের তালিকা পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছিলো, ক্লাব কর্তারা চান, তাদেরকেই দলে নেওয়া হোক।

এবিষয় সোমবার ইমামির তরফে জানানো হয়েছে, ইস্টবেঙ্গল (East Bengal) ক্লাবের তরফে যে সকল ফুটবলারদের তালিকা জমা পড়েছে, তাদের নিয়ে আলোচনা শুরু হয়ে গেছে। কিন্তু এক্ষেত্রে দলে নেওয়ার ব‍্যাপারে ইচ্ছার থেকে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে বিশেষজ্ঞের বক্তব্য এবং ভালো দল গঠন করার ব‍্যাপারে এবিষয় বেশি গুরুত্ব দেওয়া হবে। ইমামির দাবী তারা এবিষয় বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করার জন্যে ক্লাবকে বৈঠকে বসতে বলেছিলো, কিন্তু ক্লাবের তরফে কোনও সদুত্তর দেওয়া হয়নি। তারা চাইছে মার্চ মাস শেষ হওয়ার আগে এই বৈঠক সারতে এবং দলগঠনের ব‍্যাপারে যা সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, সেটা সম্পূর্ণ ক্লাবকে জানিয়েই করা হবে।

আরও পড়ুনঃ Neymar : গুরুতর চোট পেয়ে মাস চারেক মাঠের বাইরে নেইমার, চিন্তায় PSG

ইমামির তরফে বক্তব্য রাখার পর দেবব্রত দাবি করেছেন, গত ১০ ই ডিসেম্বর ক্লাব বৈঠক করতে চেয়েছিলো। মূলত দলের খারাপ পারফরম্যান্স নিয়ে আলোচনা করার কথা তুলে চিঠি পাঠানো হয় ইমামিকে। তার উত্তর এখনও অবধি ক্লাবে এসে পৌঁছয়নি। কয়েক দিন আগে ইমামির তরফে ফেব্রুয়ারিতে বৈঠক করার কথা বলা হয়, কিন্তু ওই সময় ক্লাব জানিয়ে দেয় ১৮ ই ফেব্রুয়ারি সদস্যদের সাথে বৈঠক আছে এবং এরপর যেকোনো দিন বৈঠকে বসতে রাজি তারা। কিন্তু এরপরও যদি ইমামি দাবী করে থাকে তাদের কাছে কোনও চিঠি পৌছয়নি, তাহলে সেটা অত্যন্ত হতাশজনক একটা ব‍্যাপার।

গত রোববার ইমামিরকে একটি চিঠি ধরানো হয় ইস্টবেঙ্গলের (East Bengal) তরফে। সেই চিঠির বক্তব্য, এই মরশুমে ক্লাবের খারাপ পারফরম্যান্স সমর্থকদের মন ভেঙেছে। তাই ১৮ ই ফেব্রুয়ারি সদস্যদের সাথে বৈঠক করা হয়েছিলো।‌ ওইদিন সদস্য এবং কর্তারা মিলে একটি দেশি – বিদেশি ফুটবলারদের নিয়ে তালিকা বানিয়েছেন। অবশ্য বেশ কিছু ফুটবলার এখন অন‍্য ক্লাবে আছে, তাদের নিতে হলে ট্রান্সফার ফি দিয়ে নিতে হবে। আশা রাখা হচ্ছে খুব শীঘ্রই এব‍্যাপারে কাজ শুরু হবে।

আরও পড়ুনঃ Aiden Markram : সাউথ আফ্রিকার নতুন টি টোয়েন্টি অধিনায়কের পদে এলেন এডেন মারক্রাম